সরাসরি বিকাশে আসবে রেমিট্যান্সের টাকা

November 28, 2018 11:25 am
Print Friendly, PDF & Email

বিশ্বের অর্ধশতাধিক দেশ থেকে প্রবাসী বাংলাদেশীরা ওয়ার্ল্ড রেমিটের মাধ্যমে দেশে বিকাশ ও ব্র্যাক ব্যাংকে সরাসরি বাংলাদেশে টাকা পাঠাতে পারবেন।

প্রবাসীরা এই টাকা পাঠাতে পারবেন দেশে ব্র্যাক ব্যাংকের ১৮৬টি শাখা, ১৫ লাখ অ্যাকাউন্ট ও বিকাশের তিন কোটি মোবাইল অ্যাকাউন্টে।

বিশ্বের অন্যতম ডিজিটাল আর্থিক লেনদেন প্রতিষ্ঠান ওয়ার্ল্ড রেমিট বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রম বাড়ানোর অংশ হিসেবে ব্র্যাক ব্যাংক ও বিকাশের সঙ্গে যৌথ অংশীদারিত্ব করেছে।

অংশীদারিত্ব অনুযায়ী প্রবাসী বাংলাদেশীরা ওয়ার্ল্ড রেমিট অ্যাপ বা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে দেশে টাকা পাঠাতে পারবেন। রেমিট্যান্স পাঠাতে ওয়ার্ল্ড রেমিটের মোবাইল-ফার্স্ট নামক ডিজিটাল মডেল ব্যবহার করতে হবে। এর ফলে গ্রাহককে টাকা পাঠানোর জন্য কোনো এজেন্টের কাছে যেতে হবে না।

৫০টির বেশি দেশ থেকে বিকাশ ও ব্র্যাক ব্যাংকে টাকা পাঠানো যাবে

ওয়ার্ল্ড রেমিট অ্যাপ বা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে টাকা পাঠাতে হবে

টাকা সরাসরি জমা হবে বিকাশ ওয়ালেটে

পাঠানো টাকা সরাসরি বিকাশের মোবাইল মানি ওয়ালেটে জমা হবে। এরপর চাইলে গ্রাহকরা সেই অর্থ তাদের বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে অন্য বিকাশ অ্যাকাউন্টে পাঠাতে, মোবাইলে রিচার্জ করতে, বিল পরিশোধ ও কেনাকাটা করতে পারবেন।

ওয়ার্ল্ড রেমিটের প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা তামের ইএল-ইমারি বলেন, বিকাশ ও ব্র্যাক ব্যাংকের সঙ্গে অংশীদারিত্ব বাংলাদেশে ব্যাংকিং সুবিধা বঞ্চিত জনগোষ্ঠীকে মোবাইল মানি একাউন্টের মাধ্যমে আর্থিকভাবে অর্ন্তভূক্ত করে সরাসরি রেমিটেন্স পেতে সহায়তা করবে। এতে দেশের ১০ লাখেরও বেশি ব্র্যাক ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ও শতাধিক ক্যাশ পিক আপ লোকেশনের সঙ্গে যুক্ত হবে ওয়ার্ল্ড রেমিট।

বিকাশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কামাল কাদীর বলেন, ওয়ার্ল্ড রেমিটের মাধ্যমে বিদেশ থেকে অর্থ প্রেরণের এমন চুক্তি করতে পেরে আমরা আনন্দিত। বিকাশের মাধ্যমে দেশের যেকোন স্থানে রেমিটেন্স সেবা পাওয়ার এই অভিজ্ঞতা প্রবাসীদের জন্য অনন্য হবে।

ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম আর এফ হোসেইন বলেন, ওয়ার্ল্ড রেমিটের মাধ্যমে আমাদের গ্রাহকরা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ও সরাসরি তাদের ব্র্যাক ব্যাংক অ্যাকাউন্ট, ব্র্যাক ব্যাংক ব্রাঞ্চ কাউন্টারে নগদ উত্তোলন, ব্যাংকের এজেন্ট পয়েন্ট ও বিকাশ মোবাইল ওয়ালেটের মাধ্যমে বিদেশ থেকে পাঠানো টাকা গ্রহণ করতে পারবেন। এটা আমাদের অংশীদারিত্বের শুরু এবং নতুন ও আধুনিক সেবা প্রদানের মাধ্যমে আমরা গ্রাহকদের জীবন আরও সুন্দর করতে চাই।