এমিরেটসের বোয়িং ৭৭৭ বিমানে রয়েছে অত্যাধুনিক ফার্স্ট ক্লাস প্রাইভেট স্যুট

December 3, 2018 11:51 am
Print Friendly, PDF & Email

বিমানের মধ্যেও একান্ত ব্যক্তিগত সময় কাটাতে চান? বা বিমানেই বিছানায় শুয়ে নিজের মতো করে গান শুনতে চান? সবই পারবেন এ বার। ছয়টি মহাদেশের ১৪০টি শহরে পাড়ি দিচ্ছে এই বিমান। সেখানে রয়েছে এই ব্যবস্থা। এমিরেটসের বোয়িং ৭৭৭ বিমানে রয়েছে নতুন ধরনের ফার্স্ট ক্লাস প্রাইভেট স্যুট। স্মার্ট টেকনোলজি ও ইন্টেলিজেন্ট ডিজাইন এই স্যুটকে করে তুলেছে অভিনব।

স্লিক ডিজাইনের স্লাইডিং ডোর-সহ এই ‘ক্লাসি টেক্সচার প্যানেল’ স্যুটের নকশা একেবারে মার্সিডিজ বেঞ্জ-এস ক্লাসের অনুকরণে তৈরি। প্রায় ৪০ বর্গফুটের একান্ত ব্যক্তিগত স্যুট আছে এই বিমানে, আসনের মাপ ৭২ ইঞ্চি। থাকবে নিজস্ব বিছানাও। শুধু এই স্যুট বানাতে এমিরেটসের খরচ হয়েছে কয়েক কোটি টাকা। বিছানা রাখার পরেও জামাকাপড় বদলানোর জায়গাও থাকছে এতে। নাসার জিরো গ্র্যাভিটি পজিশনের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়েই এই আরামদায়ক বিছানার ব্যবস্থা আছে বিমানের স্যুটে।

বিজনেস ক্লাসের আসনগুলি একেবারে নরম আরামদায়ক চামড়ার তৈরি। ওয়্যারলেস ব্যবস্থার মাধ্যমে সিটের পজিশন পছন্দমতো ঠিক করে নেওয়া যাবে। আধুনিক কেবিনে হাওয়া চলাচলের বিশেষ ব্যবস্থাও রয়েছে বিশেষ ধরনের। নিজস্ব মিনিবার ও বিশেষ স্ন্যাক্সও বিশেষ পরিষেবার মধ্যেই পড়ছে। চেয়ারের মাথা রাখার জায়গায় আছে বিশেষ আরামদায়ক ব্যবস্থা।বোয়িং, রকওয়েল কলিনস ইন্টিরিয়র সিস্টেম, প্যানাসোনিক, জ্যাক পিয়েরে জঁ ডিজাইনের স্টুডিয়ো, সিয়াটেলের ডিজাইন সংস্থা টেগের সঙ্গে মিলে এই অভিনব স্যুট তৈরি হয়েছে। প্রথম ভার্চুয়াল উইন্ডো আছে এই স্যুটে। থাকবে আকাশ দেখার জন্য বাইনোকুলারও।

রুম সার্ভিস বা বিমানকর্মীদের সঙ্গে ভিডিয়ো কলের মাধ্যমে কথা বলা যাবে।সার্ভিস উইন্ডোর মাধ্যমে দরজা না খুলেই কেবিনে খাবার, জল ইত্যাদি দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে এতে। ৩২ ইঞ্চির এইচডি এলসিডি টিভির পর্দায় রয়েছে ২৫০০ চ্যানেল সার্ফিংয়ের ব্যবস্থা। উইলকিনসের অ্যাক্টিভ নয়েস ক্যানসেলিং ই১ হেডফোনও রয়েছে সঙ্গে। এটি প্রথম শ্রেণির কেবিনের কথা ভেবেই তৈরি। প্রতিটি স্যুটে থাকছে লাক্সারি বাইরেডো স্কিনকেয়ার কালেকশন, হাইড্রা অ্যাক্টিভ ময়েশ্চারাইজিং পায়জামা, বুলগারি অ্যামেনিটি কিটস। থাকবে জামাকাপড় রাখার জন্য বিশেষ কাবার্ডও। বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ শেফদের রান্না খেতে পারেন চাইলে। রয়েছে অন্যতম সেরা কিছু ওয়াইন, শ্যাম্পেনের বন্দোবস্তও।

প্রতিটি কেবিন ক্লাসেই থাকবে নতুন প্রজন্মের আইস ইনফ্লাইট এন্টারটেইনমেন্ট সিস্টেম। প্রতিটি ইন-সিট স্ক্রিনে আছে আল্ট্রা-ওয়াইড ভিউইং অ্যাঙ্গেল, টাচ স্ক্রিন, এলইডি ব্যাকলাইট, এইচডি ডিসপ্লে। বিমানের প্রথম শ্রেণির ভাড়া শুরু হচ্ছে প্রায় সাড়ে ছয় লক্ষ টাকা থেকে। এটি বিমানের এক পিঠের ভাড়া।