হংসবলাকার উড্ডয়নের আগে যান্ত্রিক ক্রুটিতে বোয়িং এর মান নিয়ে প্রশ্ন?

December 3, 2018 12:54 pm
Print Friendly, PDF & Email

যাত্রা শুভ হয়নি হংসবলাকার। শুরুতেই বিপত্তি ঘটেছে। যান্ত্রিক ত্রুটির কবলে পড়ায় যাত্রানাস্তি হয়ে গেছে বিমানের দ্বিতীয় ড্রিমলাইনারের। এতে আট ঘণ্টা বিলম্বের শিকার হয় হংসবলাকা। শনিবার বিকেল চারটায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সিডিউল থাকলেও তা রাত সাড়ে ১১টায় পৌঁছায়।

বিমান জানিয়েছে, শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টায় ঢাকার উদ্দেশে সিয়াটল ছাড়ার সিডিউল ছিল হংসবলাকার। কিন্তু যান্ত্রিক ত্রুটির দরুন আট ঘণ্টা বিলম্বে শনিবার সকাল দশটায় এটি সিয়াটল পেনফিল্ড থেকে উড্ডয়ন করে। হংসবলাকার অবস্থান ছিল যখন চীনের আকাশে তখন টেলিফোনে এ বিষয়ে একজন যাত্রী  জানান, শুক্রবার রাতে বোয়িং ফ্যাক্টরির সদর দফতর পেনফিল্ড এয়ারপোর্ট থেকে হংসবলাকা ঢাকার উদ্দেশে রওনা হবার সব প্রস্তুতি নেয়ার পর পরই সেখানকার টেকনিক্যাল টিম ফাইনাল ইন্সপেকশনের সময় যান্ত্রিক ত্রুটি ধরা পড়ে। এ সংবাদ জানতে পেরে বোয়িংয়ের উপস্থিত কর্মকর্তারাও বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন। তারা যান্ত্রিক ত্রুটির ব্যাখ্যা না দিয়ে- খুব দ্রুততার সঙ্গে পরিস্থিতি সামাল দেন। তাৎক্ষণিক যান্ত্রিক ত্রুটি সারার চেষ্টা করলেও তা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। টানা ছয় ঘণ্টা চেষ্টার পর যান্ত্রিক ত্রুটি মেরামত করতে সামর্থ্য হয় বোয়িং কোম্পানি। তারপর বাকি আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করতে আরও দু’ঘণ্টা লেগে যায়। অবশেষে শনিবার বাংলাদেশ সময় সকাল দশটায় আকাশে উড়ে হংসবলাকা। রাত সাড়ে এগারোটায় হংসবলাকাকে অভ্যর্থনা জানাতে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে অপেক্ষায় ছিলেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্যাপ্টেন মোসাদ্দিক আহমেদ ও অন্যান্য কর্তারা। তবে কি ধরনের যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দিয়েছে তা নিশ্চিত করতে পারেনি বিমান কর্তৃপক্ষ।

বিমানের অপর এক পরিচালক জানিয়েছেন, ড্রিমলাইনার ৭৮৭ হংসবলাকা দেশে রওনা হওয়ার আগে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটলের বোয়িং সদর দফতরের পেনফিল্ড বিমানবন্দরে ফিতা কেটে এর উদ্বোধন করা হয়। এ সময় বিমান কর্তৃপক্ষের কাছে ড্রিমলাইনারটির চাবি ও মালিকানা বুঝিয়ে দেন বোয়িং ভাইস প্রেসিডেন্ট জেফ ক্লিম্যান। এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন, এনবিআরের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, বিমানের পরিচালক (অপারেসন্স) ক্যাপ্টেন জামিল ও অর্থ লগ্নিকারী প্রতিষ্ঠান এইএসবিসি ব্যাংকের ডেপুটি সিইও মাহবুবুর রহমান, বিমান পরিচালনা বোর্ডের সদস্য ব্যারিস্টার তানজিবুল আলমসহ অর্থ, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন, আইন ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

এদিকে বোয়িংয়ের হাতে থাকাবস্থাতেই হংসবলাকায় যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়ায় বাংলাদেশী ডেলিগেটদের মাঝেও বেশ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। এমনকি এ ঘটনায় বোয়িং কোম্পানির মানও প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিমানের একজন সফরকারী। তার মতে, মাত্র কিছুদিন ইন্দোনেশিয়ায় লায়ন এয়ারের বোয়িং জেডএক্স সিরিজের ৭৩৭ উড়োজাহাজটি দুর্ঘটনায় পড়ে ভেঙ্গে চুরমার হয়ে যাওয়ায় খোদ বোয়িং কোম্পানিই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে। কোম্পানিটি বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে থাকা এ সিরিজের সবগুলো এয়ারক্রাফট পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখার সিদ্ধান্ত নেয়। এরই মধ্যে শুক্রবার ঘটে যায় এমন অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা। সম্পূর্ণ নতুন এই ড্রিমলাইনারের উদ্বোধনী যাত্রাতেই যান্ত্রিক ত্রুটির দেখা দেয়ায় সঙ্গত কারণেই বোয়িংয়ের মান ও নির্ভরযোগ্যতা প্রশ্নের মুখে পড়েছে।