বিনামূল্যে খাবার বন্ধ করল এই বিমান সংস্হা

December 5, 2018 10:53 am
Print Friendly, PDF & Email

আর্থিক সংকট। তাই কমাতে হবে খরচ। সেই কারণে বড় সিদ্ধান্ত নিল জেট এয়ারওয়েজ। তারা ঠিক করেছে, বিনামূল্যে খাবার দেওয়া বন্ধ করে দেওয়া হবে। তবে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে শুধুমাত্র ইকনমি ক্লাসের যাত্রীদের জন্য।

আগামী জানুয়ারি থেকেই এই সিদ্ধান্ত বলবত্ করা হবে বলে ওই বিমান সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে অন্তর্দেশীয় বিমান পরিষেবার ক্ষেত্রে এই মাস থেকেই এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করে দেওয়া হয়েছে। যদিও ইকনমি ক্লাসের যাত্রীরা চালিয়েই বিমানে খাবার কিনে খেতে পারবেন।

 

জেট এয়ারওয়েজের ইকনমি ক্লাসের পাঁচটি স্তর রয়েছে। ওই পাঁচটি স্তরের মধ্যে দু’টি স্তরে বিনামূল্যে খাবার দেওয়া বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আগামী ৭ জানুয়ারি থেকে বাকিগুলিতেও এই পরিষেবা বন্ধ করতে চলেছে জেট এয়ারওয়েজ। তবে বিজনেস ক্লাসে আগের মতোই খাবার দেওয়ার পরিষেবা চালু থাকবে বলে জানা গিয়েছে।

বেশ কিছুদিন ধরেই আর্থিক সংকটে ভুগছে জেট এয়ারওয়েজ। ওই বিমান সংস্থা কেনার বিষয়ে টাটা গোষ্ঠীকে অনুরোধ করা হয়েছিল কেন্দ্রের তরফে। সেই সিদ্ধান্ত ইতিবাচক হবে কি না, এখনও জানা যায়নি। তার আগে অবশ্য খরচ কমাতে সবরকম চেষ্টা করছে জেট এয়ারওয়েজ।