ভুল সংকেত দিয়ে জরুরি অবতরণ দিল্লিগামী বিমানের!

July 17, 2019 10:50 am
Print Friendly, PDF & Email

সোমবারের এই ঘটনা সম্পর্কে সংবাদ সংস্থা পিটিআই সূত্রে খবর, নির্ধারিত সময় মুম্বই থেকে দিল্লির উদ্দেশে রওনা দেয় ভিস্তারা বিমান ইউকে ৯৪৪। কিন্তু খারাপ আবহাওয়ার কারণে, দৃশ্যমানতার অভাবে দিল্লি বিমানবন্দরে অবতরণের সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়ে দেয় এটিসি। ফলে বাধ্য হয়েই ফের মুম্বইয়ে ফিরে আসার সিদ্ধান্ত নেন ওই বিমানের চালক। কিন্তু বাধ সাধে বিমানের অপর্যাপ্ত জ্বালানি। ইতিমধ্যেই লখনউ এটিসি-এর সঙ্গে যোগাযোগ করে জানা যায় যে, সেখানকার আবহাওয়া এবং দৃশ্যমানতা দিল্লির তুলনায় অপেক্ষাকৃত ভাল। তাই সেখানেই জরুরি অবতরণের বার্তা দেন ইউকে ৯৪৪-এর বিমানচালক। এর পরই ১৫৩ জন যাত্রী নিয়ে লখনউতে জরুরি অবতরণ করে ভিস্তারা বিমান ইউকে ৯৪৪।

সোমবারের ওই ঘটনায় রেডিয়ো বার্তায় তিনি বলেন, ‘ফুয়েল মেডে’। এর অর্থ হল, বিমানে জ্বালানি শেষ। আর এই বার্তার জেরেই সাসপেন্ড হতে হল বিমান চালককে। বলে রাখা ভাল, জাহাজে বা বিমানে ‘মেডে’ শব্দটির ব্যবহার করার অর্থ, সেটি প্রাণঘাতী, অত্যন্ত বিপজ্জনক পরিস্থিতির মুখে পড়েছেন। প্রাণহানীকর জরুরী অবস্থা বোঝাতেই এই শব্দটির ব্যবহার করা হয়। সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে ভিস্তারা বিমান ইউকে ৯৪৪-এর চালক জানান, যখন বিমানটি লখনউ বিমানবন্দরে নামে তখন আর মাত্র ১০ মিনিট ওড়ার মতো জ্বালানি অবশিষ্ট ছিল। এই ঘটনায় অসামরিক বিমান পরিষেবা নিয়ন্ত্রক ডিজিসিএ (DGCA) ওই বিমান চালককে সাসপেন্ড করেছে।