উড়োজাহাজ নিরাপত্তা রেটিংয়ে মালয়েশিয়ার অবনমন

November 12, 2019 11:50 am
Print Friendly, PDF & Email

এশিয়ানমেইল ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফএএ) উড্ডয়ন   নিরাপত্তা রেটিংয়ে মালয়েশিয়ার এক ধাপ অবনমন হয়েছে।

এর ফলে মালয়েশিয়ার এয়ারলাইন্স যুক্তরাষ্ট্রে তাদের ফ্লাইটের সংখ্যা বাড়াতে বাধার মুখে পড়বে বলে সোমবার জানিয়েছেন বিষয়টির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট চার কর্মকর্তাসহ এক মার্কিন সরকারি কর্মকর্তা।

তারা জানান, নিরাপদ এয়ারলাইন্সের রেটিংয়ে মালয়েশিয়াকে ক্যাটাগরি ২ তে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার এফএএ থেকে এ সংক্রান্ত আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসতে পারে।

একটি দেশের বিমান পর্যবেক্ষণ ব্যবস্থা এবং দেশটির বেসামরিক বিমানপরিবহন কর্তৃপক্ষের মূল্যায়নের ভিত্তিতে এফএএ ওই দেশের বিমান পরিবহন ব্যবস্থায় নিরাপত্তার রেটিং দেয়।

এ রেটিংয়ে একধাপ নিচে নেমে যাওয়ায় মালয়েশিয়ার এয়ারলাইন্স নতুন কোনো পরিষেবা চালু করতে পারবে না। যুক্তরাষ্ট্রে বর্তমানে তাদের যে ফ্লাইটগুলো চলাচল করে সেগুলো সীমিত হয়ে পড়বে এবং যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবন্দরগুলোতে মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটগুলোকে বাড়তি পরীক্ষা-নিরীক্ষার মুখেও পড়তে হতে পারে।

বর্তমানে মালয়েশীয় এয়ারলাইন্সের মধ্যে একমাত্র এয়ার এশিয়ার যুক্তরাষ্ট্রগামী ফ্লাইট আছে। তাদের ফ্লাইটগুলো কুয়ালালামপুর থেকে হনলুলু হয়ে আলাস্কা যায়।

নিরাপত্তা রেটিংয়ে অবনমনের বিষয়ে জানতে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের পক্ষ থেকে এফএএ এবং মালয়েশিয়ার বেসামরিক বিমান পরিবহন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেও সাড়া মেলেনি।

মালয়েশিয়ার পরিবহন মন্ত্রণালয় থেকেও এ বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

মালয়েশিয়া যেন নিজেদের সমস্যার সমাধান করে আবারও আন্তর্জাতিক মানে পৌঁছে ক্যাটাগরি ১ এ উন্নীত হতে পারে সেজন্য যুক্তরাষ্ট্র সরকার দেশটির বেসামরিক বিমান পরিবহন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কাজ করছে বলে জানিয়েছে মার্কিন ওই সরকারি কর্মকর্তা।

এ বিষয়ে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, তিনি এ অবনমনের বিষয়ে এখনো কিছু জানেন না।

তিনি বলেন,“তবে যদি আমাদের বেসামরিক বিমান পরিবহনের সঙ্গে ভুল কিছু হয় তবে অবশ্যই আমরা তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। আমরা পরিস্থিতি ঠিক করব।”