করোনাভাইরাস: বিমান খাতে লোকসান ৫ বিলিয়ন ডলার

February 15, 2020 4:05 pm
Print Friendly, PDF & Email
এশিয়ানমেইল ডেস্ক
বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার কারণে চার থেকে পাঁচ বিলিয়ন মার্কিন ডলার লোকসান হতে পারে বলে আশক্সক্ষা করেছে আন্তর্জাতিক বেসামরিক বিমান পরিবহন সংস্থা (আইসিএও)।

মালয়েশিয়ার সংবাদমাধ্যম দ্য স্টার জানায়, গত বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংস্থাটি এক প্রতিবেদনে জানায়, চীনের ভেতরে ও বাহিরে ৭০টি বিমান এয়ারলাইন্স তাদের নিজস্ব ফ্লাইট সার্ভিস বাতিল করেছে। এছাড়া, আরো ৫০টি এয়ারলাইন্স নিজেদের বিমান সেবা শিথিল করেছে। ২০২০ সালের প্রথমার্ধে প্রত্যাশার তুলনায় প্রায় ২০ লাখ আরোহী কম হয়েছে। একারণে প্রায় ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার লোকসান হবে বলে জানায় সংস্থাটি।

ইতোমধ্যে করোনাভাইরাসে ১৪০০ নিহত এবং প্রায় ৬৫ হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছে।

আইসিএও জানায়, আন্তর্জাতিক রুটে ২০১৯ সালের তুলনায় ২০২০ সালে ৯ শতাংশ সামর্থ্য বৃদ্ধির লক্ষ্য থাকলেও চীনের অভ্যন্তরে ও বাহিরে বিমানে ভ্রমণের পরিমাণ ৮০ ভাগ কম হয়েছে।

চীনের বিমান চলাচল বন্ধের কারণে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জাপান। প্রতি বছর চীন থেকে প্রচুর পর্যটক জাপানে ভ্রমণ করেন। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে চলতি বছরের শুরুতে জাপানে চীন থেকে আগত পর্যটক নেই বললেই চলে। প্রত্যাশা অনুযায়ী পর্যটক না আসায় জাপানের লোকসান হয়েছে ১ দশমিক ২৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। লোকসানের দিক থেকে জাপানের পরে থাইল্যান্ড। থাইল্যান্ডের ক্ষতি হয়েছে প্রায় ১ দশমিক ১৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

আইসিএও আশক্সক্ষা করছে, করোনাভাইরাসের কারণে আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ ২০০২-০৩ সালে চীনের সার্স ভাইরাসকেও ছাড়িয়ে যাবে।

করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষার উদ্দেশ্যে ব্রিটেন, জার্মানি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান এবং আরো কয়েকটি দেশ চীনে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।