আকাশপথ মুক্ত হলেই উড়বে রিজেন্ট এয়ারওয়েজ

March 24, 2020 9:45 am
Print Friendly, PDF & Email

 

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনাভাইরাসের প্রভাব থেকে আকাশপথ মুক্ত হলে আবার উড়বে বেসরকারি এয়ারলাইন্স প্রতিষ্ঠান রিজেন্ট এয়ারওয়েজের প্লেন।

সোমবার (২৩ মার্চ) গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ইমরান আসিফ এ তথ্য জানান।

করোনার কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতি উন্নতি সাপেক্ষে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার পর আবার ফ্লাইট অপারেশন শুরু করবে রিজেন্ট এয়ারওয়েজ। এমন প্রতিশ্রুতির ঘোষণা দিয়ে ফ্লাইট অপারেশন্স সাময়িক স্থগিতের ব্যাখ্যা দিল দেশের বেসরকারি খাতের অন্যতম বিমানসংস্থাটি।

বিজ্ঞপ্তিতে সিইও জানান, বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ (করোনাভাইরাস) এর প্রাদুর্ভাবের কারণে চলমান সংকটের কথা বিবেচনা করে রিজেন্ট এয়ারওয়েজ রোববার (২২ মার্চ) থেকে সব ধরনের ফ্লাইট অপারেশন (আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ) সাময়িকভাবে স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘বিশ্বব্যাপী করোনার বিস্তার যতই ছড়িয়েছে ততই বিভিন্ন দেশ ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করতে বাধ্য হয়েছে। দেশসমূহে প্রবেশে কড়াকড়ি হওয়ায় বিভিন্ন বিমান সংস্থা অনির্দিষ্টকালের জন্য তাদের সব কার্যক্রম স্থগিত করে, যা বিশ্বব্যাপী অ্যাভিয়েশন শিল্পকে এক অপূরণীয় ক্ষতির সম্মুখীন করে।’

তিনি জানান, বাংলাদেশের একটি বিশ্বস্ত এবং স্বনামধন্য বেসরকারি এয়ারলাইন্স হিসেবে রিজেন্ট এয়ারওয়েজের শেষ পর্যন্ত ফ্লাইট পরিচালনার প্রচেষ্টা অব্যাহত ছিল। যদিও তা একমাত্র আন্তর্জাতিক রুট সিঙ্গাপুর থেকে আরোপিত ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার কারণে স্থগিত করতে বাধ্য হয়েছে। দেশের অভ্যন্তরে সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় পর্যটন রুট কক্সবাজারেও ফ্লাইট পরিচালনার চেষ্টা অব্যাহত ছিল। কিন্তু করোনার প্রাদুর্ভাব রোধে পর্যটকদেরকে ভ্রমণে নিরুৎসাহিতের নির্দেশনার কারণে বন্ধ করে দিতে হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, করোনাভাইরাস পরিস্থিতি সত্ত্বেও গত ৮ মার্চ থেকে ২০ মার্চ পর্যন্ত বিভিন্ন আন্তর্জাতিক রুট যেমন কাতার, ভারত, ওমান, মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুরে রিজেন্ট এয়ারওয়েজ সীমিত পরিসরে কার্যক্রম পরিচালনা করে গেছে। সবশেষ আন্তর্জাতিক ফ্লাইট গত ২০ মার্চ স্থানীয় সময় রাত ১১টা ৩৫ মিনিটে সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকায় অবতরণ করে। এছাড়াও অভ্যন্তরীণ রুটে ২১ মার্চ বেলা ১টা ৫০ মিনিটে কক্সবাজার থেকে ঢাকায় অবতরণ করে।

পরিস্থিতি স্বাভাবিকতায় দ্রুত কার্যক্রম শুরুর ঘোষণা দিয়ে রিজেন্টের প্রধান কর্মকর্তা বলেন, ‘এই সংকটের সময় অ্যাভিয়েশন শিল্পের আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক বাজার পরিস্থিতি, স্বাভাবিক অবস্থার ওপর আমরা সার্বক্ষণিক নজর রাখব। সে হিসেবে আমরা নিজেদের কার্যক্রম আবারও পুরোদমে চালু করতে উদ্যোগী হব। ভ্রমণের ওপরে যাত্রী আস্থা পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে রিজেন্ট এয়ারওয়েজ তার ফ্লাইট পরিচালনা তথা বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করবে।’